বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪৪ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
সত্য প্রকাশে অপ্রতিরোধ্য দৈনিক সময়ের কণ্ঠ ডটকমে আপনাকে স্বাগতম  

২০ বছর ধরে ক্ষুধার্ত কুকুরকে খাবার দিচ্ছেন সজল

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২ জুলাই, ২০২১, ৭:১২ পূর্বাহ্ন

কঠোর লকডাউনের কারণে সারাদেশের মতো সন্ধ্যার পর একেবারেই জনমানব শূন্য হয়ে পড়ে নেত্রকোবার কলমাকান্দা উপজেলা সদরও। সবাই যখন বাড়িতে অবস্থান করছেন ঠিক এমন সময় কিছু খাবার নিয়ে একটি বাইসাইকেলে করে বাড়ি থেকে বের হয়ে কলমাকান্দা বাজারের রেন্ট্রিতলা মোড় এলাকায় ছুটে আসেন সজল সাহা।

তারপর তিনি তার সঙ্গে থাকা খাবারগুলো কয়েকটি কুকুরের মাঝে বিলিয়ে দেন। আর এমন মানবিক দৃশ্যটি দেখে তখন অবাক হন কলমাকান্দা বাজারের অপর ব্যবসায়ী কাজল তালুকদার।

ব্যবসায়ী কাজল তালুকদারের সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, সজল সাহা পেশায় একজন পুরাতন রেডিও টেলিভিশন মেরামতকারী। তার বাড়ি কলমাকান্দা উপজেলার বাসাউড়া গ্রামে। তবে কলমাকান্দা বাজারে তিনি সবার কাছে সজল মেকার নামেই পরিচিত। কারণ ১৯৮৫ সাল থেকে তিনি এ বাজারে পুরাতন রেডিও টেলিভিশন মেরামতের কাজ করে আসছেন।

কাজল তালুকদার আরো বলেন, সজল সাহা শুধু একজন মেকারই না। তিনি হলেন একজন মানবিক ও প্রাণিপ্রেমী মানুষ। আজ করোনাভাইরাসের প্রকোপে কঠোর  লকডাউনে গোটাদেশ। সকাল থেকেই কলমাকান্দা উপজেলা প্রশাসন পুলিশ, বিজিবি, আনসার এর তৎপরতায় সরকারের বিধিনিষেধের কারণে সন্ধ্যার পর জনমানব শূন্য হয়ে যায় বাজার। কিন্তু এমন সময় সজল মেকার বাইসাইকেল চালিয়ে বাজারের রেন্টিতলায় হাজির। তাকে দেখেই অন্তত ছয়টি ক্ষুধার্ত কুকুর চিৎকার শুরু করল। তারপর তিনি দোকানের শাটার খুলে খাবার দিলেন। কুকুরের সঙ্গে এমন ভালোবাসা বিনিময়ের দৃশ্য দেখে থমকে দাঁড়ালাম।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ.....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর