বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৩৬ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
সত্য প্রকাশে অপ্রতিরোধ্য দৈনিক সময়ের কণ্ঠ ডটকমে আপনাকে স্বাগতম  

ঝড় আসছে সতর্ক হোন:প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট টাইম : রবিবার, ২৩ মে, ২০২১, ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন

ভারতের উত্তর আন্দামান সাগর ও পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার পথে থাকা লঘুচাপ নিয়ে সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে উপকূলে আঘাত হানলে তা মোকাবিলায় সব প্রস্তুতি নেয়া আছে বলেও আশ্বস্ত করেছেন সরকারপ্রধান।

রবিবার (২৩ মে) মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১০০টি বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, ৩০টি বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র, ৩০টি জেলা ত্রাণ গুদাম-কাম-দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা তথ্যকেন্দ্র, ৫টি মুজিব কেল্লার উদ্বোধন ও ৫০টি মুজিব কেল্লার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে রোববার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন তিনি। সেখানে এই সতর্কবার্তা দেন সরকার প্রধান।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘একটু সতর্ক করছি। আরেকটা ঘূর্ণিঝড় কিন্তু আসছে। আর সেটা কেবল তৈরি হচ্ছে, কতদূর যাবে! এখন আধুনিক প্রযুক্তির কারণে আমরা অনেক আগে থেকে জানতে পারি। সে বিষয়ে আমরা যথেষ্ট সতর্কতা ইতিমধ্যে নিতে শুরু করেছি। ইনশা আল্লাহ আমরা সতর্ক থাকব, এই দুর্যোগ পার করতে পারব।’

আন্দামান সাগর ও পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে সবশেষ ওডিশা-পশ্চিমবঙ্গ হয়ে আগামী বুধবারের দিকে বাংলাদেশের খুলনা উপকূলে পৌঁছতে পারে বলে ধারণা করছেন আবহাওয়াবিদরা। এই ঘূর্ণিঝড়ের নাম দেয়া হয়েছে ‘ইয়াস’। মূলত ভারতীয় উপকূলে আঘাত হানলেও বাংলাদেশে এর প্রভাব থাকবে বলে জানিয়ে আসছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আরেকটা বিষয় হলো, ঘূর্ণিঝড় এগোনোর সময় প্রতিমুহূর্তে দিক পরিবর্তন করে। দিক পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে নতুন নতুন এলাকা আক্রান্ত হওয়ার শঙ্কা বাড়ে। সে জন্য আমরা আমাদের পুরো উপকূলকে সতর্ক করব, প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা নেব।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৯৭৩ সালের এ দিনে বিশ্ব শান্তি পরিষদ জাতির পিতাকে জুলিও কুরি পদকে ভূষিত করেছিল। গণতন্ত্র, স্বাধীনতা ও শান্তি স্থাপনের জন্যই এ পদক দেয়া হয়। জাতির পিতা যে আদর্শ নিয়ে এ দেশ স্বাধীন করেছিলেন, আজ সেই দিনে মানুষের কল্যাণে কিছু কাজ করতে পেরে আমরা সত্যিই আনন্দিত।’

বাঙালি জাতির মুক্তির কান্ডারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালের ২৩ মে বিশ্ব শান্তি পরিষদ জুলিও কুরি পদকে ভূষিত হন। এটিই ছিল স্বাধীন বাংলাদেশের কোনো রাজনীতিবিদের পাওয়া প্রথম আন্তর্জাতিক সম্মান ও স্বীকৃতি।

এ সময় করোনা থেকে বাঁচতে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, করোনা মোকাবেলায় সরকারি বিধিনিষেধের ফলে সৃষ্ট কষ্ট লাঘবে সরকার সব ধরনের চেষ্টা করে যাচ্ছে বলেও জানান সরকারপ্রধান।

শুধু সরকারে নয়, বিরোধীদলে থাকার সময়ও আওয়ামী লীগ জনগণের কল্যাণে কাজ করে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারে থাকুক আর বিরোধীদলে থাকুক সব সময় মানুষের পাশে থেকেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ.....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর